মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

খাল ও নদী

বাগেরহাট জেলার রামপাল-মোংলা উপজেলা সমূদ্র সৈকত ও সুন্দর বনের ছায়া ঘেরা বিস্তৃত এলাকা, এই উপজেলা দু‌‍‌‍‌‌‌‍‍’টি বাংলাদেশের অধিকাংশ উপজেলার মধ্যে এই উপজেলা দুইটির খুবই সু-নাম রয়েছে। বঙ্গোপ সাগর থেকে উঠে আসা পশুর নদী মোংলা বন্দর হতে খুলনা অভিমূখে এর গতীবিধ। মোংলা বন্দরের মোহনা দিয়েই উঠে আসা কুমার খালী নদী। কুমার খালী নদীর ৮.৫ কি:মি: উত্তর-পূর্বে রামপাল উপজেলা অবস্থিত।মদনাখালী নদী হয়ে বিষ্ণে নদী উত্তর অভিমুখে চৌমানায় শাখা প্রশাখা হয়ে পূর্বে পুটিমারি বাগেরহাট অভিমুখে সংযোগ উত্তরে ষাটগম্বুজ পশ্চিমে ফয়লা হাট অন্য শাখা বাইনতলা ইউনিয়নের মধ্য খান হতে সরাখাল নাম চাকশ্রী খালের মধ্য দিয়া জগৎ বেড়ের খাল হয়ে জসজনিয়া দাউদ খালীর নদীর সাথে সংযোগ যাহার আনুমানিক দের্ঘ ১০-১১ কি: প্রায়।শুধু বুক ভরা বেদনা নিয়েই নদীটির দিকে তাকিয়ে থাকা ছাড়া আর কিছু করণীয় নেই। দু:খ জনক কথাটি হলো যে, এ ভাবে নদীগুলো পলি মাটিতে ভরাট হয়ে গেলে বাংলাদেশের মানচিত্র নদী মাতৃক দেশ একথাটির তাৎপয রইল কোথায়। তাই আমরা দেশের জনগণ ও সরকারে সহযোগীতায় এই ভাবে নদী ভরাট থেকে বাঁচিবার কোন একটা উপায় বের করতে চাই। সমগ্র বাংলাদেশের জনসাধরণের প্রতি এই বিষয়টিকে লক্ষরেখে আমার উদ্যত আহবান রইল ।


Share with :

Facebook Twitter